বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০১:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ১১, জানাজায় মানুষের ঢল

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৩০ জুলাই, ২০২২
  • ৩১ পঠিত

‘জন্মিলে মরিতে হবে, এইতো নিয়ম’। কিন্তু সেই মৃত্যু কখনো কখনো হানা দেয় নিয়ম না মেনেই। আসে এমন অপ্রত্যাশিতভাবে যে, মেনে নেওয়া যায় না। তখন শোকের অশ্রু ক্রমাগত ঝরে চলে। এই মধ্য শ্রাবণে তেমনই অঝোরে অশ্রুঢল চলছে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে। গতকাল ট্রেনের ধাক্কায় ঝরে যাওয়া এগারোটি তাজা প্রাণ আজ একে একে শায়িত হচ্ছে কবরে। লাশের ভারী বোঝা কাঁধ নিয়ে, অশ্রুসিক্ত মানুষের বুকে হাহাকারের তীব্র তুফান।

আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে হাটহাজারীর খন্দকিয়া ছমদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে পাঁচ জনের নামাজে জানাজা একসঙ্গে সম্পন্ন হয়েছে। তারা হলেন জিয়াউল হক সজীব, রিদোয়ান, মারুফ, হাসান ও মাইক্রোবাস চালক গোলাম মোস্তফা নিরু।

জানাজায় শোকসন্তপ্ত এলাকাবাসীর ঢল নামে। অংশগ্রহণ করেন হাটহাজারীর সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিস। তিনি নিহতদের পরিবারের প্রতি শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। এ সময় চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ সালামসহ এলাকার কয়েক হাজার মানুষকে দেখা গেছে বিমর্ষ।

জানাজায় অংশ নিতে আসা সালমান হাবিব বলেন, জন্ম নিলে মরতে হবে, একে এড়ানো যাবে না। কিন্তু স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি কেন থাকবে না? এদেশের সড়কে, নৌপথে, রেলপথে আর কত প্রাণ অকালে ঝরবে?

মোহাম্মদ ইসমাইল বলেন, এক-দুই-তিন নয়, এগারোটি তাজা প্রাণ এভাবে ঝরে গেল। এই মৃত্যু মেনে নেওয়া সহজ না। এই শোক বুকে চেপে রইবে।

বৃদ্ধ সাইদুর রহমান বলেন, এই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী কে? সঠিক তদন্ত অবশ্যই করতে হবে। কিন্তু নজর দিতে হবে সার্বিক দিকে, যেন দেশের কোথাও কখনো আর এমন মৃত্যুর কালো থাবা না পড়ে।

চিকনদণ্ডী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসান জামান বাচ্চু বলেন, একসঙ্গে এত প্রাণ হারাইনি আমরা আগে কখনো। যারা নিহত হয়েছেন তারা সবাই বয়সে তরুণ। এর মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল পাঁচজন। জানি না এই শোক কীভাবে সইবো আমরা।

এর আগে গতকাল শুক্রবার রাতে দুই জনের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। নিহতদের মধ্যে শান্ত শীল নামে একজনের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে বলেও জানা গেছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে লেভেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের চালকসহ ১১ যাত্রী নিহত হন। এ ঘটনায় আহত ৬ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain 19 + = 27

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree