রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে ১৮টি অ্যারাবিয়ান ঘোড়া উপহার দিল কাতার

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট, ২০২২
  • ৩২ পঠিত

কাতার সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে ১৮টি অ্যারাবিয়ান ঘোড়া উপহার প্রদান করা হয়। একই সাথে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কাতার সশস্ত্র বাহিনীকে শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে ১০টি চিত্রা হরিণ উপহার প্রদান করে।

সোমবার (৮ আগস্ট) ঢাকাস্থ হযরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরের টারমাকে একটি অনাড়ম্বর শুভেচ্ছা উপহার বিনিময় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশের পক্ষে সেনাবাহিনীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মো. খালেদ-আল-মামুন, পিবিজিএম, এনডিসি, পিএসসি ঘোড়াগুলো এবং কাতার সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল আজিজ আল সুলাইতি চিত্রা হরিণগুলো উপহার গ্রহণ করেন।

উপহার বিনিময় অনুষ্ঠানের সময় উভয় পক্ষের সামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ ও বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। কাতার সশস্ত্র বাহিনী কর্তৃক প্রেরিত ঘোড়াগুলি একটি বিশেষ বিমানযোগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিকাল ৫.৩০ মিনিটে অবতরণ করে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান এর আমন্ত্রণে কাতার সশস্ত্র বাহিনীর চিফ অব স্টাফ লেফটেন্যান্ট জেনারেল (পাইলট) সালেম হামাদ আল-আকীল আল-নাবেত গত ০৬-০৮ জুন ২০২২ বাংলাদেশ সফর করেন। এ সময় তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রণ প্রস্তুতি, উন্নত প্রশিক্ষণ, বিশ্ব শান্তিতে ভূমিকা ও সামগ্রিক উচ্চমানের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

সফরের অংশ হিসেবে তিনি গত ০৮ জুন ২০২২ তারিখ বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমির ৮২তম দীর্ঘমেয়াদী কোর্সের অফিসার ক্যাডেটদের কমিশন সমাপনী কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি হিসেবে প্যারেডে অভিবাদন গ্রহণ করেন। সফর পরবর্তীকালে পারস্পরিক যোগাযোগের মাধ্যমে দু’দেশের সম্পর্কের আরও উন্নতি ঘটে। এই উপহার বিনিময় অনুষ্ঠান তারই প্রতিফলন।

কাতার সশস্ত্র বাহিনী এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এই উপহার বিনিময়ের মাধ্যমে দুই দেশের সম্পর্ক আরো জোরদার হবে যা অন্যান্য পেশাগত ক্ষেত্রে উভয় দেশের ভবিষ্যত যোগাযোগকে আরো নিবিড় ও সুদৃঢ় করবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain − 1 = 1

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree