রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

বান্দরবানে শিশু ধর্ষণ মামলায় এক জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২৭ পঠিত

বান্দরবানে দুই বছর বয়সী মাইমুনা আক্তার নামে এক শিশুর ধর্ষণ মামলায় শফিউল আলম নামে এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল।

রবিবার (২৬ সেপ্টম্বর) বেলা ১১টায় বান্দরবান নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সাইফুর রহমান সিদ্দিক এই রায় ঘোষণা করেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, মামলার আসামি শফিউল আলম গত ২৯/২/২০২১ তারিখে বাদী মো. দেলোয়ার হোসেনের দু’বছর বয়সী শিশু কন্যা মাইমুনা আক্তারকে বান্দরবান সদর উপজেলার বালাঘাটা বাজার এলাকায় আসামির ভাড়া বাসায় ধর্ষণ করে। এঘটনার পর এটনায় ধর্ষণের স্বীকার শিশু কন্যা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে এঘটনায় ধর্ষণের স্বীকার শিশুর বাবা মো. দেলোয়ার হেসেন বাদী হয়ে ধর্ষক শফিউল আলমের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/২০০৩) এর ৯(১) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এমামলায় পুলিশ আসামি শফিউলের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিলের পর আদালত ১১ জনের স্বাক্ষ গ্রহণ শেষে আসামির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় শফিউলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লক্ষ এক টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করে। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডিত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এসময় রায়ের পর্যবেক্ষণে আদালত বলেন, আমাদের সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয়, আইনের প্রতি শ্রদ্ধাহীনতা, পাপ -পূণ্যবোধ এবং নীতিবোধ এমন একটা পর্যায়ে চলে গেছে যে অপরাধী প্রতিবেশী শফিউল আলমের লালসার শিকারে পরিণত হয়ে একটি দুগ্ধপোষ্য ফুলের মত নিস্পাপ শিশু মাইমুনা আক্তার (২) তার সম্ভ্রম এবং ভবিষ্যত জীবনের নিরাপত্তা হারিয়েছে যা অত্যন্ত মর্মান্তিক ও বেদনাদায়ক এবং সমাজের প্রতিটি শিশুর নিরাপত্তা ও সুন্দর সম্ভাবনাময় ভবিষ্যৎ জীবনকে প্রশ্নবৃদ্ধ করেছে।

রায়ের পর্যবেক্ষণে আরো বলা হয়, ধর্ষণ একটি জঘন্য, ঘৃণিত, নিন্দনীয় এবং কঠোর শাস্তিযোগ্য অপরাধ। সমাজে ধর্ষণের মত এই ধরেনর ঘৃণ্য, জঘন্য ও কঠিন অপরাধের জন্য কঠোর সাজা প্রদান করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা সম্ভব হলেই কেবল নারী ও অবুঝ নিস্পাপ শিশুদের প্রতি সহিংসতা কমবে এবং প্রকৃত অপরাধীদের মনে অপকর্মের সাজা ভোগ করার একটি ভীতি সঞ্চার হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain + 39 = 41

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree