শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০৮:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

বিশ্বকাপ ফাইনালে মেসি-এমবাপ্পের লড়াই

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৩৫ পঠিত

টানা দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে ফ্রান্স । ২-০ গোলে মরক্কোর ফুটবল রূপকথা থামিয়ে তারা দুই সেরা ফুটবলারের মুখোমুখি লড়াইয়ের মঞ্চ তৈরি করেছে। রবিবার (১৮ ডিসেম্বর) ফ্রান্স-আর্জেন্টিনার ফাইনালে মেসি-এমবাপ্পের লড়াইয়ে রোমাঞ্চ ছড়াবে। এই লড়াইয়ে দুই তারকার সঙ্গে দুই ফুটবল সাম্রাজ্যের এবং দুই ঘরানার শ্রেষ্ঠত্বেরও ফায়সালা হবে।

ম্যাচ যখন ৫ মিনিট অতিক্রম করেছে তখন আক্রমণের শুরু রাফায়েল ভারানের লং বলে। গ্রিয়েজমানের পা ঘুরে আসা বলে এমবাপ্পের শট ব্লক করলে সেটি ওপরে উঠে যায়। প্রায় মাথার সমান উচ্চতায় উঠলেও হার্নান্দেজ অবিশ্বাস্য ভলিতে এগিয়ে পরাস্ত করেন বুনোকে।

মরক্কোর ফুটবল রূপকথায় প্রথম পেরেক ঠোকে ফ্রান্স। ব্যবধান বড় করে এ অধ্যায়ের একরকম ইতি টেনে দিতে পারত বিরতির আগেই। দুর্ভাগা জিরুদের ১৭ মিনিটের শটটি পোস্টে ঠেকার পর আরেকবার ফাঁকা পোস্ট রেখে মেরেছেন বাইরে। ৩৬ মিনিটে এমবাপ্পের চেষ্টা বন্ধু হাকিমি প্রতিহত করলে জিরুদ ফাঁকা পোস্টে বল পাঠানোর সুযোগ পেয়েছিলেন। মাত্র এক গোলে পিছিয়ে মানে এটলাস সিংহের সামনে তখনো সুযোগ আছে। ক্ষুধার্ত সিংহের মতো তারা ঝাঁপিয়ে পড়ে দ্বিতীয়ার্ধে। তার আগে অবশ্য ইয়ামিকের ওভারহেড ভলিটি পোস্টে না লাগলে ৪৫ মিনিটেই ম্যাচে ফেরে তারা। সেটা সফল না হলেও বিরতির পর ১৫ মিনিট তারা আক্রমণের বন্যা বইয়ে দিয়েছে ফরাসি রক্ষণে।

গোল হতে পারত যখন-তখন। ওনাহি ও অমরাবাতে মরক্কোর মাঝমাঠ যেমন সুশোভিত ফরোয়ার্ড লাইনটা ঠিক সে রকম নয়। দক্ষ কোনো স্ট্রাইকার নেই। তাই প্রতিপক্ষের রক্ষণ কাঁপিয়ে, ভয় ধরিয়েও পারেনি গোল আদায় করতে। ম্যাচে ফিরতে। উল্টো আরেক গোল খেয়ে ইতি টেনে দিয়েছে মরক্কোর ফুটবল রূপকথার। ইতি টানলেন কি না আরেক অখ্যাত কোলো মুয়ানি!

৭৯ মিনিটে দেম্বেলের বদলি হয়ে কেবল নেমেছেন এই তরুণ উইঙ্গার। ঠিক ওই সময় কিলিয়ান এমবাপ্পে দুই পায়ের ড্রিবলে মরক্কোর রক্ষণ তছনছ করে গোলের মুহূর্ত তৈরি করে ফেলেন। এরপর কিলিয়ানের বাড়ানো বলটি দূরের পোস্টে দাঁড়িয়ে কোলা মুয়ানি অনায়াসে ফিনিশ করে আন্তর্জাতিক গোলের খাতা খোলেন। এই গোলের সঙ্গে সঙ্গেই থেমে যায় আল বাইতে লালের তরঙ্গ। লা ব্লুজরা আবার বিশ্বকাপ ফাইনালে শিরোপা ধরে রাখার মিশনে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain 4 + 2 =

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree