শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

বিশ্বের সবচেয়ে খাটো পুরুষ গিনেস বুকে নাম লেখালেন আফশিন

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৪০ পঠিত

বিশ্বের সবচেয়ে খাটো পুরুষ হিসেবে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম উঠলো ইরানের বাসিন্দা আফশিন ইসমায়েল গাদেরজাদেহের।

আফশিনের উচ্চতা মাত্র ৬৫.২৪ সেমি বা ২ ফুট ১.৬ ইঞ্চি যা পূর্বতন রেকর্ডধারীর চেয়ে ৭ সেমি কম। এর আগে এই রেকর্ড ছিল কলাম্বিয়ার ৩৬ বছর বয়সী এডওয়ার্ড নিনো হার্নান্দেজের।

মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে ২০ বছর বয়সী আফশিনের এই উচ্চতা রেকর্ড করে গিনেস কর্তৃপক্ষ।

এই উচ্চতা পরিমাপ দেয়ার জন্য আফশিন গিনেসের দুবাই অফিসে আসেন। সেখানে হেয়ার স্টাইলিস্ট ও টেইলারদের সাথে সময় কাটানোর পাশাপাশি তার বাকেট লিস্টে থাকা বিশ্বের সবচেয়ে সুউচ্চ ভবন বুর্জ খলিফা পরিদর্শন করেন।

ইরানের পশ্চিম আজারবাইজান প্রদেশের বুকান কাউন্টিতে অবস্থিত একটি প্রত্যন্ত গ্রামে আফশিন বাবা-মার সঙ্গে বাস করেন। কথা বলেন ফার্সি উপভাষা কুর্দি এবং ফার্সি উভয় ভাষায়। মাত্র ৭০০ গ্রাম বা ১.৫ পাউন্ড ওজন নিয়ে জন্মগ্রহণ করেন আফশিন। এখন তার ওজন মাত্র সাড়ে ছয় কেজি বা ১৪.৩ পাউন্ড।

উত্তর ইরানে আফশিনের জীবন সহজ ছিল না। তার আকারের কারণে স্কুলে যেতে পারেননি কখনো। এছাড়াও শারীরিক অক্ষমতা তো ছিলই। সব সময় দুর্বল থাকতেন আফশিন। ছোটবেলায় সেখানে চিকিৎসাও করাতে পারেননি আফশিনের বাবা-মা। তবে আফশিনের শারীরিক দুর্বলতা থাকলেও তার কোনো মানসিক সমস্যা নেই। বর্তমানে তার বয়স ২০ বছর।

কম উচ্চতার জন্য তার বাবার মতো নির্মাণ শ্রমিকের পেশায় যেতে পারেননি আফশিন। সত্যিকারে বুকান কাউন্টির ওই প্রত্যন্ত গ্রামে আফশিনের করার মতো কোনো কাজই নেই।

আফশিনের সময় কাটে সোশ্যাল মিডিয়া স্ক্রল করে এবং কার্টুন দেখে। আফশিন ফুটবল খেলা দেখতেও ভালোবাসেন। তার প্রিয় ফুটবল খেলোয়াড়রা হলেন গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডধারী আলি দাই (ইরান) এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (পর্তুগাল)।

নিজের এলাকায় আফশিন খুবই জনপ্রিয় তার আচার-ব্যবহারের জন্য। মানুষকে যতটা পারেন সবসময় সাহায্য করেন এবং হাসিখুশি থাকেন। এজন্য এলাকার মানুষও খুব ভালোবাসেন তাকে। তার এই রেকর্ডের জন্য বাবা-মা সহ প্রতিবেশীরাও খুশি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain 30 + = 35

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree