বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

মহেশখালীতে কলেজ ছাত্র হত্যা: খুনীদের শাস্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২৪ পঠিত

কক্সবাজারের মহেশখালী ডিগ্রি কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের ছাত্র মো. আরফাত উদ্দিনকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে খুনীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা পালন করেছে মহেশখালী ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার দিকে মহেশখালী ডিগ্রি কলেজের প্রধান ফটকে মহেশখালী কলেজ শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীবৃন্দের ব্যানারে এ মানববন্ধন আয়োজন করেন। কলেজের কয়েক-শতাধিক ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষকেরা এ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন একাধিক শিক্ষক ও শিক্ষার্থী। তারা বলেন, আমাদের কলেজের মেধাবী ছাত্র আরফাতকে সামান্য বিষয় তথা গরু কৃষি জমিতে ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। খুনীদের দ্রুত সময়ে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তি না দিলে আরও কঠোর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন।

জানা যায়, গত রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার দিকে বড় মহেশখালীর আলমগীর ফরিদ টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজ মাঠ সংলগ্ন জনৈক আবুল কাছিমের কৃষি জমিতে একই এলাকার শফর মল্লুকের ছেলে শাহ আলম ও সালাম মিয়া ড্রাইভারের বাড়ির একটি গরু ধানক্ষেতে ঢুকে ক্ষেত নষ্ট করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষে বাকবিতণ্ডতা হয়। পরবর্তীতে স্থানীয়ভাবে বিষয়টি সমাধানও হয়। পরে রবিবার রাত ৯ টার দিকে আবুল কাছিমকে আবারও গাড়ি অবরোধ করে তাকে মারধর করেন। খবর পেয়ে তার সন্তান সোহেল এবং ভাতিজা কলেজ ছাত্র আরফাত উদ্ধার করতে গেলে পরিকল্পিতভাবে স্থানীয় সফর মুল্লুকের ছেলে ছালাম মিয়া ড্রাইভার, শাহ আলম, তৌহিদ এবং বেশ কিছু নারীসহ সড়কের উপরই লাঠিসোঁটা নিয়ে তাদের উপর হামলা করে। এতে মারাত্মকভাবে আহত হন আরফাত ও সোহেল। তাদের প্রথমে উদ্ধার করে মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়া যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে আহত আরাফাতের অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। সেখানে চট্টগ্রাম ট্রিটমেন্ট হাসাপাতালে দুইদিন আইসিতে থাকার পর মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) আরাফাতের মৃত্যু হয়। উক্ত ঘটনায় নিহতের মা কহিনুর বেগম একটি হত্যা মামলা করলেও এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

নিহত আরফাত বড় মহেশখালী ইউনিয়নের জাগিরাঘোনা এলাকার মো. জালাল উদ্দীনের ছেলে এবং বড়মহেশখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ৭নং ওয়ার্ডের সভাপতি ছিলেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain 3 + 1 =

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree