বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:১২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

রামগড়ে ইউপিডিএফের সন্ত্রাসী হামলায় ২ চালকসহ আহত ৩, প্রতিবাদে ধর্মঘট চলছে

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ২৬ পঠিত

খাগড়াছড়ির রামগড়ে ইউপিডিএফের প্রসীত গ্রুপের সন্ত্রাসীদের হামলায় ২ জন সিএনজি চালক ও একজন কৃষি শ্রমিক গুরুতর আহত হয়েছেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে সিএনজি চলক সমবায় সমিতি আজ রবিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার তিনটি সড়কে ধর্মঘট পালন করছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে রামগড় উপজেলার প্রেমতলা নামক স্থানে ইউপিডিএফের প্রসীত গ্রুপের এক অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী মোবাইল ফোনে কল করে ডেকে নিয়ে সিএনজি চালক আবুল কালাম(৫৫) ও সাইফুল ইসলাম(২৮)-কে অমানুষিকভাবে বেদম প্রহার করে আহত করেছে। তারা দুজন সম্পর্কে জামাই-শ্বশুর এবং উপজেলার কাশিবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা।

একই সময়ে ঐ সন্ত্রাসী কৃষি শ্রমিক সাইফুল(৩০)-কে নুরপুর এলাকা থেকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে প্রেমতলা এলাকায় প্রচণ্ড প্রহার করে আহত করে। তিনি নুরপুর গ্রামের মৃত শামছুল হকের ছেলে। স্থানীয় লোকজন খবর পেয়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে প্রেমতলা থেকে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত সিএনজি চালক আবুল কালম বলেন, বিকাল ৩টার দিকে তার মেয়ের জামাই সাইফুল ইসলামকে ইউপিডিএফের সন্ত্রাসী সজল ত্রিপুরা মোবাইল ফোনে কল করে তাদের দুজনকে প্রেমতলায় ডেকে নেয়। তারা ভাড়া করা মোটরসাইকেলে করে প্রেমতলায় গেলে সন্ত্রাসী সজল ত্রিপুরা প্রথমে আবুল কালামকে মন্দিরের সামনে নিয়ে চোখমুখ বেধে শক্ত লাঠি দিয়ে এলোপাথারি পিটাতে থাকে। এক পর্যায়ে তার মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি করে হত্যার হুমকি দেয় ওই সন্ত্রাসী। পরে তার মেয়ের জামাইকে ঐ স্থানে নিয়ে একইভাবে বেদম প্রহার করে। এসময় সন্ত্রাসী সজল তাদের কছে দুই লাখ টাকা দাবি করে।

কালাম ও সাইফুল জানান, বিজিবির র্সোস সন্দেহ করে এবং বিভিন্ন যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার মিথ্যা অজুহাতে তাদেরকে অমানুষিকভাবে পিটানো হয়।

অপরদিকে, কৃষি শ্রমিক সাইফুল জানান, সন্ত্রাসী সজল বেলা আড়াইটার দিকে নুরপুর থেকে তাকে একটি মোটরসাইকেলে জোর করে তুলে প্রেমতলায় নিয়ে যায়। সেখানে চোখমুখ ও হাত বেধে প্রচণ্ড পিটায় সন্ত্রাসী সজল। আহত করার পর তার কাছেও দুই লাখ টাকা দাবি করে ওই সন্ত্রাসী।

খবর পেয়ে বল্টুরামটিলা এলাকা থেকে ১০-১৫ জন যুবক মোটরসাইকেলে করে প্রেমতলায় গেলে সন্ত্রাসী সজল ত্রিপুরা পালিয়ে যায়। পরে আহত তিনজনকে তারা উদ্ধার করে রামগড় হাসপাতালে ভর্তি করায়। হাসপাতলে গিয়ে দেখা যায়, আহত তিনজনের পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে শক্ত লাঠির প্রচণ্ড আঘাতে কালো হয়ে গেছে। অসহ্য ব্যথায় তারা হাসপাতালের বেডে কাঁতরাচ্ছেন। এ ঘটনায় গ্রামবাসীদের মধ্যে উত্তেজনা সৃস্টি হয়।

এদিকে, দুই সিএনজি চালককে অমানুষিকভাবে পিটিয়ে আহত করার ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার রামগড়-বৈদ্যপাড়, রামগড়- পিলাক ও রামগড় -যৌথখামার সড়কে সিএনজি অটোরিকসা ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

রামগড় সিএনজি অটোরিকসা চালক সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক হৃদয় রহমান রনি জানান, তাদের দুই সিএনজি চালককে অমানুষিকভাবে নির্যাতনের প্রতিবাদে তারা আজ সকাল থেকে রামগড়ের তিনটি সড়কে দিনব্যাপী সিএনজি ধর্মঘট পলন করছে।

সন্ত্রাসী প্রহারে তিন ব্যক্তির আহতর ঘটনার বিষয়ে জানতে রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)-কে একাধিকবার কল করেও পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain + 72 = 73

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree