রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

সন্তু লারমার প্রতি খুন ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বন্ধের দাবিতে ইউপিডিএফের মানববন্ধন

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৪ জুলাই, ২০২২
  • ২২ পঠিত

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) ও আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় ওরফে সন্তু লারমার প্রতি অবিলম্বে খুন, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বন্ধের দাবি জানিয়েছেন, ‌প্রসীত বিকাশ খীসার নেতৃত্বাধীন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) সমর্থিত বিভিন্ন সংগঠন।

রবিবার (২৪ জুলাই) খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার বাবুছড়া এলাকাবাসীর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

এখানে বক্তব্য রাখেন, সামাজিক অবক্ষয় প্রতিরোধ কমিটির বাবুছড়া শাখার সম্পাদিকা ঊষা রানী চাকমা ও যুব সমাজের প্রতিনিধি সুভাষ চাকমা।

মানববদ্ধনে বক্তারা বলেন, ‘আমরা সবাই শান্তিতে থাকতে চাই। সেজন্য আমরা আজকে মানববন্ধনে দাঁড়িয়েছি। আমরা সবাই একতাবদ্ধ হয়ে থাকতে চাই। তারা অচিরেই সংঘাত বন্ধ করে শান্তি স্থাপনের জন্য সন্তু লারমা তথা জেএসএস’র প্রতি আহ্বান জানায়।’

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, ‘দীঘিনালার মানববন্ধন কর্মসূচি বানচাল করে দিতে গতকাল থেকে মুখোশ ও জেএসএস সন্তু গ্রুপের সদস্যরা এলাকার জনপ্রতিনিধি, কারবারি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিগণকে মোবাইলে কল করে হুমকি ও বাধা দেয়। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে সশস্ত্রভাবে অবস্থান নিয়ে জনগণকে বাধা প্রদান করে জেএসএস।’

একই দাবিতে সাজেক নারী সমাজ, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘ ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি ও সাজেকও পৃথক পৃথকভাবে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

মানববন্ধনে লিখিত বক্তব্যে বক্তারা ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের সাথে হওয়া সমঝোতার শর্ত ও সংঘাত বন্ধের প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘন করে জেএসএস সন্তু গ্রুপ কর্তৃক ১১ জুন থেকে নতুন করে ইউপিডিএফের ওপর সশস্ত্র হামলা ও পর পর দুই ইউপিডিএফ সদস্যকে খুনের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

বক্তারা অভিযোগ করেন, ‘সন্তু লারমা আঞ্চলিক পরিষদে তার গদি রক্ষার জন্য সংঘাত শুরু করেছে। সে গদি রক্ষার জন্য নিজ দলের কর্মীদর বলি দিচ্ছে, নিরীহ জনগণকে বলি দিচ্ছে। এক কথায় সে অন্যের জীবন ও রক্ত দিয়ে তার গদি ঠিক রাখার চেষ্টা চালাচ্ছে। সন্তু লারমার কারণে আজ সমগ্র জাতি ও জনগণ বিভক্ত হয়ে রয়েছে, ঐক্যবদ্ধ হতে পারছে না।’

মানববন্ধন থেকে জেএসএসের (সন্তু) নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বক্তারা বলেন, ‘আপনারা আমাদের ভাই, আমরা বা ইউপিডিএফ আপনাদেরকে কখনই শত্রু মনে করি না। কিন্তু আপনাদেরকে ভুল বোঝানো হচ্ছে, বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। এজন্য আপনারা অনেকে যারা বন্ধু তাদেরকে শত্রু মনে করছেন, আর যারা গণশত্রু তাদেরকে বন্ধু মনে করছেন। জাতির জন্য চরম ক্ষতিকর ভ্রাতৃঘাতী সংঘাতকে আন্দোলন বলে মনে করছেন। নিজের ভাইকে শত্রু মনে করছেন।’

তারা আরও বলেন, ‘কেবল (সন্তু) একজনের জন্য আজ আমাদের ভাইয়ে ভাইয়ে এমন দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক ভুল বোঝাবুঝি হচ্ছে। তাই আপনাদের আত্মোপলব্ধি করতে হবে, সবকিছু সঠিকভাবে বিচার বিশ্লেষণ করতে হবে, সবকিছু অন্ধভাবে মেনে নেবেন না। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড জিইয়ে রাখার ফরমান মানবেন না। মনে রাখবেন জাতির চেয়ে একজন ব্যক্তিনেতা কখনই বড় হতে পারে না।’

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘সন্তু লারমার ষড়যন্ত্র কখনই সফল হতে দেবো না। আমরা তার জাতি বিধ্বংসী অপতৎপরতা রুখবই। আমরা তার খুন ও সন্ত্রাসের রাজনীতিকে পরাস্ত করবই। কারণ আমাদের জাতি ও জনগণকে বাঁচাতে হবে। সন্তু লারমার মতো এক দালালের কাছে গোটা জাতি ও জনগণ চিরকাল জিম্মি হয়ে থাকতে পারে না।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain + 10 = 14

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree