রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দালাল-বেঈমানের জন্মদাতা কুখ্যাত ইব্রাহিমকে পাহাড়ি জনগণ কখনই ক্ষমা করবে না! টেকনাফে আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের চেষ্টা খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার থানচি বাজার সড়কের বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে ফিলিস্তিন সংকট:বেসামরিক নাগরিকদের গাজা ত্যাগের জন্য সময় নির্ধারণ করাই ইসরাইলের উদ্দেশ্য কুতুবদিয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা ইসরায়েল থেকে রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করলো তুরস্ক মাস্ক পরে অনুশীলনে বাংলাদেশ, দিল্লিতে ম্যাচ নিয়েও শঙ্কা গর্জনিয়ায় পানিতে ডুবে হেফজখানার ছাত্রের মৃত্যু পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের রানের পাহাড়

সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের লাগেজ ভেঙে আড়াই লাখ টাকাসহ মালামাল চুরি

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৪২ পঠিত

দেশকে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট এনে দিয়েছেন বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা। অথচ (বুধবার) দেশে ফেরার পর তাদের সঙ্গেই ঘটলো এমন ঘটনা। বিমানবন্দরে বাংলাদেশ দলের দুই ফুটবলার কৃষ্ণা রানী সরকার ও শামসুন্নাহারের লাগেজ ভেঙে ডলার ও টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে। দুজনের প্রায় দেড় লাখ টাকার মতো খোয়া গেছে। এ ছাড়া দলের অন্যান্য সদস্যের লাগেজও পাওয়া গেছে ভাঙা অবস্থায়।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকালে ফুটবলারদের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ‍ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। নেপালে ইতিহাস গড়ে বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পা রাখে সাবিনার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। এরপর সেখান থেকে রাজসিক সংবর্ধনা দিয়ে ছাদখোলা বাসে তাদেরকে নিয়ে যাওয়া হয় বাফুফে ভবনে।

এর মধ্যে বিমানবন্দরে ঘটে এক অপ্রীতিকর ঘটনা। কৃষ্ণাদের লাগেজ ভেঙ্গে ডলার, টাকা ও উপহারসামগ্রী চুরির ঘটনা ঘটে।

বাফুফের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বাংলাদেশ সাফ জয়ী নারী দলের সদস্য কৃষ্ণা রানি সরকারের ব্যাগ থেকে ৫০০ ডলার (প্রায় ৫২ হাজার টাকা) এবং নগদ ৫০ হাজার টাকা চুরি হয়েছে। সামসুন্নাহার সিনিয়রের ব্যাগ থেকে হারিয়েছে ৪০০ ডলার (প্রায় ৪২ হাজার টাকা)।

অন্যদিকে মার্জিয়ার ব্যাগ থেকে কিছু সংখ্যক নেপালি মুদ্রা হারানোর কথা জানিয়েছেন দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।এছাড়াও অনেকের লাগেজের তালা ভাঙ্গা ছিল বলেও জানানো হয়। যেখানে শাড়ি, প্রসাধনীসহ মূল্যবান উপহার সামগ্রী ছিল বলে জানা যায়।

সারাদিনের সংবর্ধনা শেষে ফুটবলার যখন লাগেজ হাতে পান, তখন বিষয়টি নজরে আসে তাদের।

এর আগে গতকাল দেশের মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন সাবিনারা। রাস্তার দুই ধারে যতদূর চোখ যায় শুধু মানুষ আর মানুষ। তীব্র গরম উপেক্ষা করেই সাফজয়ী অদম্য সাবিনা-সানজিদাদের একনজর দেখতে আর শুভেচ্ছা জানাতে সকাল থেকেই বিমানবন্দর এলাকায় ভিড় করতে থাকেন ক্রীড়াপ্রেমী সমর্থকরা। সময় যত গড়িয়েছে, মানুষের ভিড় তত বেড়েছে।

বিমানবন্দরে একদফা সংবর্ধনা শেষে ছাদখোলা বাসে চড়ে মতিঝিলের বাফুফে ভবনে যাওয়ার পথে মানুষের ভিড়ে গাড়ি যেন এগোচ্ছিলই না। উৎসুক জনতাকে নিরাশ করেননি ইতিহাসগড়া মেয়েরা। ভ্রমণের ক্লান্তি উপেক্ষা করেই সারাটা সময় হাত নাড়িয়ে ট্রফি উঁচিয়ে অভিবাদনের জবাব দিয়ে গেছেন তারা

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Let's check your brain + 29 = 37

একই ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved 2022 CHT 360 degree